নারায়ণগঞ্জ ১১:১২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
সিদ্ধিরগঞ্জে নূর হাবিবের চাঁদাবাজিতে অতিষ্ট ব্যবসায়ীরা পোশাক রপ্তানিতে ভিয়েতনামকে ছাড়াল বাংলাদেশ ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ ট্রেন চলাচল বন্ধ ৪ ডিসেম্বর থেকে হিন্দি সিনেমায় জয়া আহসান, নায়ক পঙ্কজ ত্রিপাঠি গ্রুপ সেরা আর্জেন্টিনা, শেষ ষোলয় প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া সিদ্ধিরগঞ্জে জয়নাল বাহিনীর ৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের সিদ্ধিরগঞ্জের সানারপাড় স্কুলে অনৈতিক আর্থিক সুবিধায় ক্ষমতার চেয়ারে শিক্ষিকা দিলরুবা রূপগঞ্জে ভুল চিকিৎসায় ৭ বছরের মাদ্রাসা পরুয়া শিশুর মৃত্যু ফতুল্লা ওসি’র কন্যা রাইসা জিপিএ ফাইভ পেয়েছেন সোনারগাঁয়ে টেক্সটাইল মিলে ও মিষ্টি কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ড

কালাপাহাড়িয়ায় যাত্রামঞ্চে প্রতিপক্ষের হাতে একজন নিহত হওয়ার অভিযোগ

  • প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:২৯:১০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১০ নভেম্বর ২০২২
  • ৩৩ বার পড়া হয়েছে

রফিক রানা,ষ্টাফ রিপোর্টার: নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার দুর্গম এলাকা কালাপাহাড়িয়ায় বুধবার দিবাগত রাতে এক যাত্রামঞ্চে মাইকে অতিথির নাম ঘোষণা নিয়ে সংঘর্ষে হারিজ মিয়া (৪৫) নামে একজনকে বুকে ঘুষি মেরে হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহত হারিজ মিয়া খালিয়ারচর এলাকার আলমাসের ছেলে ।

স্থানীয়রা জানান, ওই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম স্বপনের খালিয়ারচর গ্রামের বাড়ির পাশের এলাকার অহিদসহ আরও কয়েকজনের তত্ত্বাবধানে রাতে ভিখারীর ছেলে নামে যাত্রাপালার আয়োজন করা হয়। তাতে আশপাশের এলাকার শত শত নারী-পুরুষ ভিড় করেন।

অনুষ্ঠান শুরুর আগে মাইকে বিশেষ অতিথি হিসেবে কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ফাইজুল হক ডালিমের নাম ঘোষণা নিয়ে হারিজের সঙ্গে সাবেক চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম স্বপনের লোকজনের বাক-বিতন্ডার ঘটনা ঘটে।

এক পর্যায়ে স্বপনের সমর্থকেরা উত্তেজিত হয়ে হারিজ মিয়ার বুকে ঘুষি মারে। এতে হারিজ মিয়া আহত হলে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কুমিল্লা জেলার মেঘনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে গেলে জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফাইজুল ইসলাম ডালিম বলেন, খালিয়ারচর এলাকাটিতে অধীকাংশই ধর্মভিরু লোকজনের বসবাস। অন্যান্য এলাকায় ধারাবাহিকভাবে যাত্রানুষ্ঠান হলেও ওই এলাকায় এ আয়োজনে স্থানীয়দের বাঁধা ছিল। আগে থেকেই সংঘর্ষের আশঙ্কা করা হচ্ছিল।এর ফলে আড়াইহাজার থানার পুলিশ সংশ্লিষ্টদের অনুষ্ঠানের আয়োজন থেকে বিরত থাকতে বলেছিলেন। কিন্তু তাতে তারা কর্ণপাত করেনি। ব্যাপকভাবে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

তিনি আরও বলেন, ঘটনার সময় আমি শেরপুরে ছিলাম। আমাকে জানানো হয়েছে যে, হারিজ মিয়াকে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনার সময়কার একটি ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ছড়িয়ে পড়েছে বলে তিনি দাবী করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এর আগেও একই এলাকায় নাটকের আয়োজনে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছিল। ঘটনার পর পুরো এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। তবে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে ঘটনাস্থলের আশপাশের এলাকায় বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এদিকে আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুল হক হাওলাদার বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এক পক্ষ দাবী করছেন এটি হত্যাকান্ড, অপর পক্ষের দাবী এটি ষ্ট্রোক জনিত মৃত্যু। তবে, ময়নাতদন্তের রিপোর্টের উপর ভিত্তি করে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

ট্যাগস :

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

সিদ্ধিরগঞ্জে নূর হাবিবের চাঁদাবাজিতে অতিষ্ট ব্যবসায়ীরা

কালাপাহাড়িয়ায় যাত্রামঞ্চে প্রতিপক্ষের হাতে একজন নিহত হওয়ার অভিযোগ

আপডেট সময় : ০৭:২৯:১০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১০ নভেম্বর ২০২২

রফিক রানা,ষ্টাফ রিপোর্টার: নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার দুর্গম এলাকা কালাপাহাড়িয়ায় বুধবার দিবাগত রাতে এক যাত্রামঞ্চে মাইকে অতিথির নাম ঘোষণা নিয়ে সংঘর্ষে হারিজ মিয়া (৪৫) নামে একজনকে বুকে ঘুষি মেরে হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহত হারিজ মিয়া খালিয়ারচর এলাকার আলমাসের ছেলে ।

স্থানীয়রা জানান, ওই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম স্বপনের খালিয়ারচর গ্রামের বাড়ির পাশের এলাকার অহিদসহ আরও কয়েকজনের তত্ত্বাবধানে রাতে ভিখারীর ছেলে নামে যাত্রাপালার আয়োজন করা হয়। তাতে আশপাশের এলাকার শত শত নারী-পুরুষ ভিড় করেন।

অনুষ্ঠান শুরুর আগে মাইকে বিশেষ অতিথি হিসেবে কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ফাইজুল হক ডালিমের নাম ঘোষণা নিয়ে হারিজের সঙ্গে সাবেক চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম স্বপনের লোকজনের বাক-বিতন্ডার ঘটনা ঘটে।

এক পর্যায়ে স্বপনের সমর্থকেরা উত্তেজিত হয়ে হারিজ মিয়ার বুকে ঘুষি মারে। এতে হারিজ মিয়া আহত হলে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কুমিল্লা জেলার মেঘনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে গেলে জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফাইজুল ইসলাম ডালিম বলেন, খালিয়ারচর এলাকাটিতে অধীকাংশই ধর্মভিরু লোকজনের বসবাস। অন্যান্য এলাকায় ধারাবাহিকভাবে যাত্রানুষ্ঠান হলেও ওই এলাকায় এ আয়োজনে স্থানীয়দের বাঁধা ছিল। আগে থেকেই সংঘর্ষের আশঙ্কা করা হচ্ছিল।এর ফলে আড়াইহাজার থানার পুলিশ সংশ্লিষ্টদের অনুষ্ঠানের আয়োজন থেকে বিরত থাকতে বলেছিলেন। কিন্তু তাতে তারা কর্ণপাত করেনি। ব্যাপকভাবে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

তিনি আরও বলেন, ঘটনার সময় আমি শেরপুরে ছিলাম। আমাকে জানানো হয়েছে যে, হারিজ মিয়াকে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনার সময়কার একটি ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ছড়িয়ে পড়েছে বলে তিনি দাবী করেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এর আগেও একই এলাকায় নাটকের আয়োজনে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছিল। ঘটনার পর পুরো এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। তবে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে ঘটনাস্থলের আশপাশের এলাকায় বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এদিকে আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুল হক হাওলাদার বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এক পক্ষ দাবী করছেন এটি হত্যাকান্ড, অপর পক্ষের দাবী এটি ষ্ট্রোক জনিত মৃত্যু। তবে, ময়নাতদন্তের রিপোর্টের উপর ভিত্তি করে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’