সোনারগাঁয়ের সংঘর্ষে আহত যুবলীগ নেতার মৃত্যু, ২ জনের অবস্তা আশংকাজনক

সোনারগাঁ প্রতিনিধি :  নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে একটি কোম্পানির বালু ভরাটকে কেন্দ্র করে। দুইদিনের সংঘর্ষের ঘটনায় চিকিৎসাধীন যুবলীগ নেতা সাইদুল ইসলাম নামের আরো একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এ নিয়ে উভয় পক্ষের ৩ জন মারা গেল। আরো দুই জনের অবস্থা আশংকাজনক বলেও জানা যায়।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের নয়াগাঁও গ্রামের হাজী আলাউদ্দিনের সঙ্গে একই এলাকার ব্যবসায়ী সাদেকুর রহমান ওরফে সাদেক মোল্লার আধিপত্য বিস্তার ও একটি কোম্পানির বালু ভরাটকে কেন্দ্র করে দ্বন্ধ চলে আসছিল। এ ঘটনায় আলাউদ্দিনের নেতৃত্বে ১৯শে ফেব্রুয়ারি হামলায় ১০ আহত হয়।

পরদিন সকালে উভয় পক্ষের লোকজন মুখোমুখি সংঘর্ষে আলাউদ্দিন পক্ষের সমর আলী নিহত হয় আহত হয় ২০জন। এ ঘটনায় নিহত সমর আলীর ভাই আব্দুল আলী বাদী হয়ে মো. জজ মিয়াকে প্রধান আসামী করে ১৭ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। অপরদিকে আহত সাদেকুর রহমানের স্ত্রী শেফালী বেগম বাদী হয়ে আলাউদ্দিনকে প্রধান আসামী করে ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

সংঘর্ষের ঘটনায় আহতদের মধ্যে সাদেকুর রহমানের পক্ষের আলী আহম্মেদ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও সাইদুর রহমান নামে এক ব্যক্তি শুক্রবার সন্ধ্যায় ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এ নিয়ে নয়াগাঁও গ্রামের সংঘর্ষ দুই পক্ষের তিনজন নিহত হলো।

এ ব্যাপারে সোনারগাঁ থানার অফিসার ইনচার্জ(ও সি) রফিকুল ইসলাম জানান, একজন মৃত্যুর সংবাদ আমিও পেয়েছি। খোঁজখবর নিতে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।