শ্রমিকলীগ নেতা লিটনের হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক শ্রমিকলীগ নেতা গাজী লিটনকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টার প্রতিবাদে এবং অভিযুক্ত সন্ত্রাসী হাসানকে গ্রেফতারের দাবিতে মানবন্ধন করেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা জাতীয় যুব শ্রমিকলীগ। মঙ্গলবার (১৬ অক্টোবর) দুপুর ১২ টার দিকে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধন থেকে জানানো হয়েছে, নারায়ণগঞ্জ জেলা যুব শ্রমিকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী মো. লিটনকে হত্যার উদ্দেশ্যে বেধরক কুপিয়েছে হত্যাসহ একাধিক মামলার আসামী মাদক ব্যবসায়ী হাসান ও তার সহযোগিরা। সোমবার দুপুরের তাকে কুপিয়ে আহত করে।

প্রসঙ্গত, সদর উপজেলার ফতুল্লা থানাধীন দেওভোগ পশ্চিম নগর এলাকার আব্দুল কাদের এর ছেলে লিটন (৪২) শহরের দুই নং রেল গেট এলাকার থানকাপড় মার্কেটের থান কাপড় ব্যাবসায়ী ও জাতীয় যুব শ্রমিকলীগ নারায়ণগঞ্জ জেলা’র সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী লিটন দীর্ঘদিন যাবত এলাকায় মাদক, সন্ত্রাস ও ইভটিজিং এর বিরুদ্ধে আপোসহীন নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন। একই এলাকর শীর্ষ সন্ত্রাসী হাসান (৩৫) প্রায় এক মাস আগে জামিনে মুক্ত হয়ে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে। হাসানের ধারা একাধিক লোক জখম হয়ে পঙ্গুত্ব সহ মানবেতর জীবন যাপন করছেন।
এ ব্যাপারে যুব শ্রমিকলীগ নেতা গাজী লিটন জানান, কিছুদিন পূর্বে আমি শীর্ষ সন্ত্রাসী হাসানের গ্রেফতার দাবিতে ফেইসবুক পেইজে একটি স্ট্যাটাস দেই। ১৫ অক্টোবর সোমবার অনুমানিক বেলা দুইটায় সময় দেওভোগ মাদ্রাসা মসজিদের সামনে আমাকে একা পেয়ে হাসান সহ অজ্ঞাত ১০ থেকে ১৫ জন সন্ত্রাসী হত্যার উদ্যেশে হামলা চালিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে আমার মাথা ক্ষত-বিক্ষত সহ শরীরের বিভিন্ন অংশ ইট দিয়ে থেতলিয়ে মারাত্বক জখম করে। আমি প্রাণ বাচাঁতে ডাক চিৎকার করলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে আমার স্বজনরা খবর পেয়ে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য খানপুর ৩০০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে আসেন। এ ঘটনায় সদর মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।