অবশেষে নির্বাচনে বিজয়ীরা মিতালী মার্কেটের দোকানদার সমিতির অফিস দখল করেছে

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি
অবশেষে সকল জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে বিনা সংঘর্ষে সিদ্ধিরগঞ্জের বিরোধ পূর্ণ মিতালী মার্কেট দোকানদার সমিতির অফিস দখল করে নিলেন পাতানো নির্বাচনে বিনা ভোটে বিজয়ী সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী ইয়াছিন মিয়া গ্রুপ। থানা পুলিশের লাগানো তালা ভেঙ্গে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকাল ৪ টায় বিপুল সংখ্যক বহিরাত লোকজন নিয়ে ইয়াছিন মিয়া সমিতির অফিসে প্রবেশ করে নবনির্বাচিত কার্যকরী কমিটির পরিচিতি সভা করে অফিসের নিয়ন্ত্রন নিয়েছেন।
সভা শেষে নবনির্বাচিত কমিটির লোকজন জানায়, মিতালী মার্কেটের দোকানদার সমিতি( রেজিঃ নং- ঢাকা-১৬৯৮) এর কার্যকরী কমিটির নির্বাচন ১০ মার্চ রোজ শনিবার অনুষ্ঠানের জন্য গত ১৫ ফেব্রুয়ারি জারীকৃত নির্বাচনী তফসিল অনুযায়ী ২৯ টি পদের জন্য ২৩ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন কমিশন কার্যালয় হতে ৪০ টি মনোনয়নপত্র বিতরণ হয়। পরে ২৪ ফেব্রুয়ারি ৩৬ টি মনোনয়নপত্র জমা হয়। সকল মনোনয়নপত্র যাছাই বাছাই করে ৩১ টি মনোনয়নপত্র সঠিক পাওয়া যায়। পরে ২৫ ফেব্রুয়ারি সঠিক মনোনয়নপত্র হুলোর খচড়া প্রার্থী তালিকা সকলের অবগতির জন্য প্রকাশ করা হয়। বাতিল মনোনয়নপত্র সম্পর্কে কোন আপীল করা হয় নাই। পরে ২৮ ফেব্রুয়ারি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহরের দিন নির্বাহী সদস্য পদে ২ জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করলে তা গৃহীত হয়। ২৯ টি পদে কোন প্রতিপক্ষ প্রার্থী না থাকায় ১৫ ফেব্রুয়ারি জারিকৃত নির্বাচন তফসিল ও আচরণবিধির ১১ নং অনুচ্ছেদ অনুযায়ী ২৯ টি পদে মিতালী মার্কেটের দোকানদার সমিতির রেজিষ্টার্ড গঠনতন্ত্র মোতাবেক ২ বছরের জন্য চুড়ান্ত ভাবে নির্বাচিত ঘোষানা করা হয় সভাপতি হাজী ইয়াছিন মিয়া, কার্যকরী-সভাপতি আমির হোসেন, সহ-সভাপতি হাজী নাজিম উদ্দিন, নূরুল হোসেন মোড়ল, মাওলানা আনোয়ার জাফরী, হাজী ইমাম হোসেন বেপারী, সাধারণ সম্পাদক ফেরদৌস আহমেদ, যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল-মামুন, বাবুল মিয়া, মোঃ সিরাজ উদ্দৌলা, মোঃ আমিনুল হক রাজু,কোষাধ্যক্ষ মোঃ নজরুল ইসলাম মনজু, সহ-কোষাধ্যক্ষ মোঃ মোস্তাক আহাম্মদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আবু ছায়েদ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আলী হোসেন, দপ্তর সম্পাদক মোঃ দেলোয়ার হোসেন, সহ-দপ্তর সম্পাদক খোকন আহমেদ, প্রচার সম্পাদক আবুল হাসেম,সহ-প্রচার সম্পাদক মোঃ মানিক সরাই, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক মঈন উদ্দিন আহম্মদ, সহ-সমাজ কল্যাণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম পাটোয়ারী, ক্রীড়া সম্পাদক মোঃ মহিউদ্দিন, সহ-ক্রীড়া সম্পাদক মাসুদ হোসেন মোড়ল ও নির্বাহী সদস্য এম এ মতিন ভুঞা, মোঃ কমর আলী মাদবর, মোঃ আনিছুর রহমান,মোঃ জসিম উদ্দিন, আবদুর রাজ্জাক ফকির ও মোতাহার মোল্লা। প্রধান নির্বাচন কমিশনার মোঃ সামছুল ইসলাম (তানভীর) স্বাক্ষরিত বিজয়ী ওই কমিটির তালিকা মহা পরিচালক শ্রম অধিদপ্তর ঢাকা, পরিচালক বিভাগীয় শ্রম দপ্তর নারায়ণগঞ্জ, জেলা প্রশাসক নারায়ণগঞ্জ, পুলিশ সুপার নারায়ণগঞ্জ, অধিনায়ক র‌্যাব ১১ সদর দপ্তর নারায়ণগঞ্জ, ডি,এস,বি নারায়ণগঞ্জ, অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সিদ্ধিরগঞ্জ থানা বরাবর জমা দিয়ে রিসিভ করানো হয়েছে।
জানা গেছে, সিদ্ধিরগঞ্জের সাইনবোর্ড সাহেবপাড়া এলাকাস্থ মিতালী মার্কেটের দোকানদার সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ ও একাধিক মামলা হয়। হাই কোর্ট থেকে একটি মামলা গত বছরের ২২ অক্টোবর রায় হয়। রায়ে রেজিষ্টার্ড অব ট্রেড ইউনিয়ন কর্তৃপক্ষকে বলা হয় রায় পাওয়ার ৭ দিনের মধ্যে একজন সরকারি কর্মকর্তাকে আহবায়ক করে মোট ৫ সদস্য কমিটি গঠন করে একটি সুষ্ঠ ও গ্রহনযোগ্য নির্বাচন সম্মন্ন করতে। কিন্তু রেজিষ্টার্ড অব ট্রেড ইউনিয়ন কর্তৃপক্ষ কোন সরকারি কর্মকর্তা ছাড়াই মামলার এক পক্ষের আলহাজ্ব সামছুল ইসলাম তানভীরকে আহবায়ক করে একটি কমিটি গঠন করে। পরবর্তীতে আহবায়ক কমিটির সদস্যগণ স্বঘোষিত ভাবে নিজেরাই নির্বাচন কমিশনের সদস্য বনে যায়। এ অনিয়ম মেনে না নিয়ে মোঃ তনয় মোল্লা ও হাজী এমদাদ আলী আহবায়ক কমিটির সদস্য পদ থেকে স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করেন। তার পরও বাকী ৩ জনেই নিয়ম নীতির তোয়ক্কা না করে ১০ মার্চ ভোট গ্রহনের তারিখ নির্ধারণ করে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি নির্বাচনের তফসিল ঘোষনা করে। সমিতির ৬ হাজার ২৩৬ জন সদস্যর মধ্যে মাত্র ৫৫২ জনকে ভোটার করে একটি চুড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করে নির্বাচন কমিশন। তাছাড়া নির্বাচন কমিশনের সদস্যরা সমিতির অফিসে না গিয়ে নমিনেশন পেপার বিক্রি করে গোপনে। সভাপতি প্রার্থী সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী ইয়াছিন মিয়া একাই ৪০ টি নমিনেশন পেপার কিনে নেয়। নির্বাচনে কোন প্রতিদ্বন্ধী না তাকায় নির্বাচন কমিশন ২৯ সদস্য বিশিষ্ট একটি গুপচি বা অনির্বাচিত কমিটি তালিকা প্রকাশ করে।