না‘গঞ্জ আইনজীবি সমিতির নির্বাচনে জুয়েল-রনি প্যানেলের নিরঙ্কুশ জয়

নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ মনোনীত হাসান ফেরদৌস জুয়েল ও রবিউল আমীন রনি প্যানেল সমিতির ১৭টি পদের সবকটিতে জয়লাভ করেছে।

মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) আইনজীবী সমিতির ভোটগ্রহণ শেষে এ ফলাফল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার এড. সামছুল ইসলাম ভুইয়া।

নির্বাচিতরা হলেন-সভাপতি এড. হাসান ফেরদৌস জুয়েল, সিনিয়র সহসভাপতি এড. আলাউদ্দিন আহমেদ, সহসভাপতি এড. সুবাস বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক এড. রবিউল আমীন রনি, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এড. মাহমুদুল হক মমিন, কোষাধ্যক্ষ এড. আবুল বাশার রুবেল, আপ্যায়ন সম্পাদক এড. মোহাম্মদ স্বপন ভুইয়া, লাইব্রেরী সম্পাদক এড. হাছিব উল হাছান রনি, ক্রীড়া সম্পাদক এড. সোহেল আজাদ, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক এড. রাজিয়া আমিন কানচি, সমাজসেবা সম্পাদক এড. মোহাম্মদ রাশেদ ভুইয়া, আইন ও মানবাধিকার সম্পাদক এড. আব্দুল মান্নান।

কার্যকরী সদস্য পদে নির্বাচিতরা হলেন-এড. এরশাদুজ্জামান ইমন, এড. হালিমা আক্তার, এড. হোসেন আহম্মদ রুবেল, এড. মেরাজ সরকার ও এড. অঞ্জন দাস।

নির্বাচন কমিশন জানায়, আইনজীবী সমিতির ১০৩৮টি ভোটের মধ্যে ৯৯২ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

হাসান ফেরদৌস জুয়েল ও রবিউল আমীন রনি প্যানেলের বিপরীতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন বিএনপিপন্থি জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদ মনোনীত মনিরুল আলম চৌধুরী রতন ও এইচএম আনোয়ার প্রধান প্যানেল।

সমিতির নির্বাচনে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ মনোনীত আরও একটি প্যানেল নির্বাচন করলেও ওই প্যানেল থেকে কেউ নির্বাচিত হননি। ওই প্যানেলের সভাপতি প্রার্থী ছিলেন এড. আনোয়ার হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক ছিলেন এড. মোঃ জসিম উদ্দিন।

প্যানেলটি মাত্র ৬ জনের একটি প্যানেল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। প্যানেলের সহসভাপতি প্রার্থী ছিলেন এমদাদ হোসেন সোহেল, যুগ্ম-সম্পাদক প্রার্থী ছিলেন এড. মামুন সিরাজুল মজিদ, কোষাধ্যক্ষ প্রার্থী ছিলেন এড. রোবেল মোল্লা ও সমাজসেবা সম্পাদক প্রার্থী ইখতিয়ার হাবীব সাগর। সব মিলিয়ে এ নির্বাচনে ১৭ পদের জন্য তিন প্যানেল থেকে লড়েছেন মোট ৪০ জন প্রার্থী।