সোনারগাঁয়ে জাতিয় পাটি সভাপতি ও চেয়ারম্যান রউফকে আটকের পর কারাগারে

সোনারগাঁও প্রতিনিধি : সোনারগাঁয়ে হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে এক নারীসহ অবরুদ্ধ রাখার ঘটনায় রয়েল রিসোর্ট, আওয়ামী লীগের কার্যালয় এবং নেতাকর্মীদের বাড়িঘরে হামলা ও ভাঙচুরের মামলায় সোনারগাঁ উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ও শম্ভুপুরা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রউফকে আটকের পর আদালতে প্রেরণ করা হয়।আদালত কারাগারে পাঠিয়েছেন ।

আজ সোমবার বিকেলে তার রিমান্ড চেয়ে সিনিয়র জুশিডিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফাহমিদা খাতুনের আদালতে পাঠানো হলে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। একইসঙ্গে আদালত রিমান্ডের শুনানির জন্য আগামীকাল মঙ্গলবার দিন ধার্য্য করেছেন।

এর আগে দুপুরে শম্ভুপুরা ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক আসাদুজ্জামান জানান, তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে, রিমান্ডের শুনানির জন্য আদালত মঙ্গলবার দিন ধার্য্য করেছেন।

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল-খ) শেখ বিল্লাল হোসেন জানান, তাকে সোনারগাঁ থানার মামলায় রিমান্ডের আবেদন করে আদালতে পাঠানো হয়েছিল। আদালত তাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন।

গত ৩ এপ্রিল সোনারগাঁয়ে রয়েল রিসোর্টে হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক এক নারীসহ অবরুদ্ধ হন। এ ঘটনায় তার কর্মী সমর্থকরা রয়েল রিসোর্ট, উপজেলা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় এবং যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতার বাড়িঘরে হামলা ও ভাঙচুর চালায়। ওই ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে ২টি ও ক্ষতিগ্রস্তরা বাদি হয়ে ৫টি মামলা দায়ের করেন। মামলায় ৪৪৬ জনের নাম উল্লেখ করে ১৮০০ জনকে আসামি করা হয়। এ পর্যন্ত ৭ মামলায় পুলিশ ৬৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে বলে জানা গেছে।